আওয়ামী লীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে যাঁরা

0
118
ফাইল ছবি

সাতটি পদ খালি রেখে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। জাতীয় কাউন্সিলের পাঁচদিন পর কার্যনির্বাহী সংসদের ৩৯টি শূন্য পদের ৩২টি প্রকাশ করা হয়েছে। এরমধ্যে নতুন মুখ এসেছে ১২। বেড়েছে নারী নেত্রীর সংখ্যা। বাদ পড়েছেন আগের কমিটিতে থাকা ৯ জন মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী ও উপমন্ত্রী।

এর আগে গত শনিবার ৮১ সদস্যবিশিষ্ট কেন্দ্রীয় সংসদের ৪২টি ও ৫১ সদস্যের উপদেষ্টা কমিটির ৪০টি পদ ঘোষণা করা হয়। বাকি ১১টি উপদেষ্টা পদ ঘোষণা করার কথা থাকলেও বৃহস্পতিবার তা করা হয়নি।

বৃহস্পতিবার রাতে এ তালিকা ঘোষণা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। দলটির সভাপতির ধানমণ্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও জানান, যে সাতটি পদ ফাঁকা রাখা হয়েছে, সেগুলো হল- সাংগঠনিক সম্পাদক-১, শিল্প ও বাণিজ্য, কোষাধ্যক্ষ, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ও কার্যনির্বাহী সদস্য-৩।

অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদক ওয়াশেকা আয়েশা খান, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ড. সেলিম মাহমুদ, শ্রমবিষয়ক সম্পাদক পদে পুনঃনির্বাচিত হয়েছেন হাবিবুর রহমান সিরাজ।

সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আফজাল হোসেন ও কুলাউড়ার সফিউল আলম চৌধুরী নাদেল। আফজাল বিদায়ী কমিটির তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক ছিলেন। উপ-দফতর সম্পাদক- সায়েম খান, উপ-প্রচার সম্পাদক হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত হয়েছেন আমিনুল ইসলাম আমিন।

কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য হলেন যারা- আবুল হাসানাত আবদুল্লাহ, মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বীরবিক্রম, অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম, ডা. মোস্তফা জালাল মহিউদ্দিন, খ ম জাহাঙ্গীর, নুরুল ইসলাম ঠান্ডু, বদরউদ্দিন আহমদ কামরান, দীপঙ্কর তালুকদার, অ্যাডভোকেট মো. আমিরুল আলম মিলন, রাজশাহীর আক্তার জাহান, হবিগঞ্জের ডা. মুশফিক, অ্যাডভোকেট এবিএম রিয়াজুল কবীর কাওছার, মেরিনা জাহান কবিতা, পারভীন জামান কল্পনা, রংপুরের হোসনে আরা লুৎফা ডালিয়া, লালমনিরহাটের অ্যাডভোকেট সফুরা খাতুন, ঢাকার অ্যাডভোকেট সানজিদা খানম, আনোয়ার হোসেন, সাহানা আনিসুর রহমান, সাহাব উদ্দিন ফরাজী, ইকবাল হোসেন অপু, মো. গোলাম কবীর রাব্বানী চিনু, মারুফা আক্তার পপি, উপাধ্যক্ষ রেমন্ড আরেং ও গ্লোরিয়া সরকার ঝর্ণা।

বিদায়ী কমিটির ৯জন মন্ত্রীর কেউ বর্তমান কমিটিতে স্থান পাননি। তারা হলেন- অর্থ ও পরিকল্পনা সম্পাদক এবং বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি, আইনবিষয়ক সম্পাদক ও গণপূর্তমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম, মহিলাবিষয়ক সম্পাদক এবং মহিলা ও শিশুবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা, ধর্মবিষয়ক সম্পাদক ও ধর্ম প্রতিমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শেখ মোহাম্মদ আবদুল্লাহ, সাংগঠনিক সম্পাদক নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী, পানিসম্পদ উপমন্ত্রী এ কে এম এনামুল হক শামীম এবং শিক্ষা উপমন্ত্রী ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল। এছাড়া স্থান পাননি কার্যনির্বাহী সদস্য শিল্পমন্ত্রী অ্যাডভোকেট নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ুন এবং শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান।

গত ২১ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের কাউন্সিল অধিবেশনে আংশিক কমিটি ঘোষণা করা হয়। এতে ৯ম বারের মতো সভাপতি নির্বাচিত হন বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সাধারণ সম্পাদক হিসেবে পুনরায় নির্বাচিত হন।

এদিন ৮১ সদস্যবিশিষ্ট কার্যনির্বাহী কমিটির ৪২টি পদে নাম ঘোষণা করা হয়। বাকি ৩৯টি কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্য পদে নেতৃত্ব চূড়ান্ত করতে বুধবার প্রেসিডিয়াম বৈঠক করে আওয়ামী লীগ। এরপর বৃহস্পতিবার পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণার কথা জানিয়েছিলেন দলের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে