চলে গেলেন কচুগাড়ীর বিশিষ্ট চিকিৎসক ডাঃ লুৎফর রহমান

0
188

নিজস্ব প্রতিনিধিঃ  চলে গেলেন চলনবিলের কচুগাড়ী গ্রামের বিশিষ্ট চিকিৎসক, বড়াইগ্রাম উপজেলা আওয়ামী লীগের  স্বাস্থ্য বিষয়ক সম্পাদক,কচুগাড়ী ফকির বাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের সভাপতি, ডাঃ লুৎফর রহমান।  গতকাল দুপুর ১.৫০মিনিটে নিজ বাড়িতে তিনি  ইন্তেকাল করেন।  মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৭৫ বছর। তিনি স্ত্রী, দুই ছেলে ও তিন মেয়েসহ বহু আত্মীয়স্বজন ও গুণগ্রাহী রেখে গেছেন ।

ডাঃ লুৎফর রহমান নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম  উপজেলার কচুগাড়ী  গ্রামে ১৯৪৬  সালের ২৮ শে আগষ্ট  জন্মগ্রহণ করেন।  তার পিতার নাম ছিল   ডাঃ ময়েজ উদ্দিন  আহমেদ   ।  তৎকালীন সময়ে  চলনবিলের কচুগাড়ী গ্রামসহ আশেপাশের অনেক গ্রামে তার বাবা ডাঃময়েজ উদ্দিন  আহমেদের গ্রাম্য চিকিৎসক হিসেবে বেশ নামডাক ছিল। নিজ গ্রাম কচুগাড়ী প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে  প্রাথমিক শিক্ষা শেষ করে তিনি কাছিকাটা  উচ্চ বিদ্যালয়ে ভর্তি হন।  তিনি কাছিকাটা   উচ্চ বিদ্যালয় হতে ১৯৬৩  সালে মেট্রিকুলেশন পাশ করেন । এরপর তিনি ভর্তি হন   পাবনা এডওয়ার্ড কলেজে ।  তিনি ১৯৬৮ সালে এডওয়ার্ড কলেজ থেকে আইএ পাশ করেন। তিনি ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহণ করেন। মুক্তিযুদ্ধে অংশগ্রহণ করার কারণে পাক হানাদার বাহিনী ও তাদের এদেশীয় দোসররা ১৯৭১ সালে তার বাড়ীতে অগ্নি সংযোগ করে। তিনি যে সময় আইএ পাশ করেন সে সময় সরকারী চাকুরী করার অনেক সুযোগ থাকলেও তিনি তা গ্রহণ করেননি। তিনি তার পিতার পদাঙ্ক অনুসরণ করে মানুষের সেবায় নিয়োজিত হন। তিনি একজন চিকিৎসক হিসেবে এলাকায় বিশেষভাবে পরিচিত ছিলেন। আজীবন তিনি কচুগাড়ী গ্রামের  শিক্ষা, সমাজকল্যাণ ও  উন্নয়নমূলক বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের সাথে জড়িত ছিলেন। কচুগাড়ী ফকিরবাড়ী উচ্চ বিদ্যালয় প্রতিষ্ঠায় তার বিশেষ অবদান ছিল।

তিনি  বেশ কিছুদিন থেকেই বার্ধক্যজনিত নানা সমস্যায় ভুগতে ছিলেন। তার নামজে জানাজা কচুগাড়ী এবতেদায়ী মাদ্রাসা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয়। জানাজায় বহু গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ শরিক হন। জানাজা শেষে তাকে কচুগাড়ী গোরস্থানে সমাহিত করা হয়।

উল্লেখ্য তিনি  আমাদের বড়াইগ্রাম-গুরুদাসপুরের মাননীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস সাহেবের একজন ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন। কাছিকাটা হাইস্কুলে উনারা একসাথে লেখাপড়া করেছেন। আমৃত্যু তার সাথে নিবিড় যোগাযোগ ছিল। বড়াইগ্রাম  উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মিজানুর রহমান মিজান তার বড় ভাগ্নে।   বড় ছেলে ফরিদুজ্জামান স্বপন খলিষাডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন।তার ছোট ভাই সাইদুর রহমান মন্টু কচুগাড়ী ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে