চাহিদার ৬০ ভাগ মোবাইল স্থানীয় কারখানায় তৈরি: টেলিযোগাযোগমন্ত্রী

0
211

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, আমদানিনির্ভর জাতি থেকে বাংলাদেশ এখন মোবাইল সেটসহ ডিজিটাল ডিভাইসের উৎপাদক ও রফতানিকারক দেশে রূপান্তর লাভ করেছে। আমরা আমেরিকায় মোবাইল রফতানি করছি। বিশ্বের ৮০টি দেশে আমরা সফটওয়্যার রফতানি করছি। সৌদি আরবে আইওটি ডিভাইস রফতানি হচ্ছে। নেপাল ও নাইজেরিয়ায় ল্যাপটপ ও কম্পিউটার রফতানি করছে বাংলাদেশ। তিনি বলেন, ‘স্থানীয় কারখানার উৎপাদিত মোবাইল থেকে দেশের চাহিদার শতকরা ৬০ ভাগ  মেটানো সম্ভব হচ্ছে।’

রবিবার  টঙ্গীতে ফাইভ স্টার মোবাইল কোম্পানির নিজস্ব ভবনে স্থাপিত কারখানার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি এসব কথা বলেন।

ফাইভ স্টার মোবাইল কোম্পানির চেয়ারম্যান মো. অলিউল্লাহর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল, বিটিআরসি’র চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হক এবং বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা মহাজোটের চেয়ারম্যান এবং বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কেন্দ্রীয় কমান্ড কাউন্সিলের সাবেক মহাসচিব মনিরুল হক প্রমুখ অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তৃতা করেন।

টেলিযোগাযোগমন্ত্রী বলেন, ‘পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে ডিজিটাল ডিভাইস বিশেষ করে স্মার্টফোন মানুষের জীবনযাত্রায় শ্বাস-প্রশ্বাসের মতো অপরিহার্য।’

ডাক ও টেলিযোগাযোগমন্ত্রী ২০০৮ সালে ঘোষিত ডিজিটাল বাংলাদেশ কর্মসূচিকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার একটি দূরদর্শী বৈপ্লবিক কর্মসূচি উল্লেখ করে বলেন, ‘ইংল্যান্ড, ভারত, পাকিস্তান, ভিয়েতনাম ও মালদ্বীপসহ বিশ্বের অনেক দেশ, এমনকি ২০১৬ সালে ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরাম চতুর্থ শিল্প বিপ্লব ঘোষণার মধ্য দিয়ে ডিজিটাল বিশ্ব ঘোষণা প্রদান করে। করোনাকালে অচল জীবনযাত্রা সচল রাখতে এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশের মানুষের জীবনযাত্রা উন্নত বিশ্বের মানুষের জীবনযাত্রা থেকে পিছিয়ে থাকেনি। এশিয়ার অনেক দেশের জিডিপি যেখানে ঋণাত্মক, সেখানে বাংলাদেশ শতকরা ৫ দশমিক ৮ ভাগ থেকে ৭ ভাগ জিডিপি অর্জন করে।’ এটা ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের সুফলের ধারাবাহিকতার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত বলে তিনি উল্লেখ করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে