সড়ক দুর্ঘটনা তছনছ করে দিল ব্যাংক কর্মকর্তার পুরো পরিবারটিকে

0
141
সপরিবারে বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক সাইফুজ্জামান। ছবি: সংগৃহীত

একটি সড়ক দুর্ঘটনা বেড়ানোর আনন্দকে বিষাদে ভরিয়ে দিল। গোটা পরিবারকে করে ফেলল তছনছ। পরিবারের বাবা ও দুই মেয়ে মারা গেছেন। গুরুতর আহত হয়ে হাসপাতালে আছেন মা ও ছোট ছেলে।

আজ শনিবার সকালে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে ঘটে যাওয়া দুর্ঘটনায় এমন পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। লরির সঙ্গে প্রাইভেটকারের সংঘর্ষে তছনছ হয়ে গেল গোটা পরিবার।

সকাল আটটার দিকে ফোজদারহাট-বন্দর বাইপাস সংযোগ সড়ক এলাকার এই দুর্ঘটনায় প্রাণ হারান বাংলাদেশ ব্যাংকের যুগ্ম পরিচালক সাইফুজ্জামান মন্টু (৪৫), দুই মেয়ে তাসফিয়া (১৪) ও তাসরিন (১২)। এই ঘটনায় তাঁর স্ত্রী কনিকা আক্তার (৩৫) ও শিশু ছেলে মন্টি (১০) আহত হয়েছে। তারা বর্তমানে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

পুলিশ জানিয়েছে, নিহত ব্যাংক কর্মকর্তা পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বান্দরবান বেড়াতে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ঢাকায় ফেরার পথে দুর্ঘটনায় পড়ে তাদের বহনকারী প্রাইভেটকারটি।

কুমিরা ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ও ফৌজদারহাট পুলিশ হতাহতদের উদ্ধার করে। পরে নিহত তাসফিয়া ও তাসরিনকে হাইওয়ে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির সার্জেন্ট খায়রুল ইসলাম  বলেন, সকালে ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা একটি লরি ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক থেকে ফৌজদারহাট-বন্দর সংযোগ সড়কের দিকে ঘুরছিল। এ সময় চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা দুটি প্রাইভেটকারের সঙ্গে লরির সংঘর্ষ হয়। এতে একটি প্রাইভেটকারে থাকা দুই বোন ঘটনাস্থলেই মারা যায়।

বার আউলিয়া হাইওয়ে থানা উপপরিদর্শক (এসআই) কাওছার উদ্দিন বলেন, আহত অবস্থায় সাইফুজ্জামান, তাঁর স্ত্রী ও ছেলেকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক সাইফুজ্জামানকে মৃত ঘোষণা করেন।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে