ফরিদপুরে অগ্নিকাণ্ডে দোকান ও বসতবাড়ি ভস্মীভূত

0
55

পাবনার ফরিদপুরে অগ্নিকাণ্ডে দুইটি দোকান ও একটি বসত বাড়ির তিনটি ঘর পুড়ে গেছে। রবিবার মধ্যরাতে ফরিদপুর পৌর শহরের গোপালনগর বাজারে রঞ্জু সরকারের পেট্রোল-ডিজেল ও শ্যালো মেশিনের খুচরা যন্ত্রাংশের দোকানে এবং ইউসুফ আলীর মুদিখানার দোকানে এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। পরে তা ইউসুফ আলীর বসতবাড়িতেও ছড়িয়ে পড়ে। বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে এই অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয় বলে জানায় স্থানীয় বাসিন্দারা। অগ্নিকাণ্ডে অন্তত ১৫ লাখ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে বলে জানিয়েছে ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা।
ক্ষতিগ্রস্ত ব্যবসায়ীরা জানান, প্রতিদিনের মতো রাত এগারোটার সময় দোকান বন্ধ করে বাড়িতে যায় তারা। হঠাৎ করে রাত বারোটার দিকে সড়কে চলাচলকারীরা আগুন আগুন বলে চিৎকার শুরু করে। এ সময় দোকানের মালিক ইউসুফ আলী সহ শহরের অন্যান্য বাসিন্দারা দোকানের সামনে এসে জড়ো হয়। দোকানের মধ্যে পেট্রোল ও ডিজেলের অনেকগুলো ব্যারেল সহ দাহ্য পদার্থ থাকার কারণে আগুন মুহূর্তের মধ্যে বীভৎস রূপ নেয়। এ সময় ফায়ার সার্ভিস কর্মীদের খবর দেওয়া হলে তারা পৌঁছানোর পূর্বেই দোকান দুইটি সহ ইউসুফ আলীর তিনটি বসত ঘর পুড়ে যায়। পরে ফায়ার সার্ভিস কর্মীরা ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা করে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে। পেট্রোল ও ডিজেলের দোকানের মালিক রঞ্জু সরকারের বাড়ি পার্শ্ববর্তী মৃধাপাড়া গ্রামে। সে ইউসুফ আলীর ঘরে ভাড়া থাকতো।
ব্যবসায়ী রঞ্জু সরকার বলেন, গত মাসে ব্র্যাক ব্যাংক থেকে ৬ লাখ টাকা ঋণ করে দোকানে শ্যালো মেশিনের খুচরা যন্ত্রাংশ উঠিয়েছিলাম। অগ্নিকাণ্ডের সব নষ্ট হয়ে যাওয়ায় ঋণ পরিশোধ করব কিভাবে বুঝতে পারছিনা। এখন সরকারি সহায়তা না পেলে একেবারে পথে বসে যাব।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে