বড়াইগ্রামে কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানীকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ

0
97

নিজস্ব প্রতিবেদক, বড়াইগ্রাম:  নাটোরের বড়াইগ্রামে কলেজ ছাত্রীর শ্লীলতাহানীর অভিযোগে আসলাম হোসেন (২৪) নামে এক সেলুন কর্মীকে আটক করেছে পুলিশ। এদিকে, এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে উভয় পক্ষের সংঘর্ষে দু’জন আহত হয়েছে। বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১১ টার দিকে উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের পাগলা বাজারে এ ঘটনা ঘটে। আটক আসলাম হোসেন উপজেলার জোনাইল ইউনিয়নের দিঘইর গ্রামের জিন্নাত আলীর ছেলে। সে জোনাইল পাগলা বাজারের একটি সেলুনে কাজ করতো।

স্থানীয়রা জানান, বৃহস্পতিবার ওই কলেজ ছাত্রী প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র কিনতে জোনাইল বাজারে যাচ্ছিল। এ সময় পাগলা বাজার এলাকায় আসলাম হোসেন তার শ্লীলতাহানী করে। মেয়েটি চিৎকার করলে বাজারের ব্যবসায়ীসহ অন্যরা এগিয়ে এসে আসলামকে হাতেনাতে আটক করে। পরে খবর পেয়ে মেয়েটির স্বজনরা বাজারে এসে আসলামকে মারপিট শুরু করে। এতে বাধা দিলে উত্তেজনার এক পর্যায়ে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে মেয়েটির স্বজনদের সংঘর্ষ ঘটলে দুইজন আহত হয়।

আহত সংগ্রামপুর গ্রামের রমজান আলীর ছেলে আলম ও মন্তাজ আলীর ছেলে সিরাজুল ইসলামকে স্থানীয় ক্লিনিকে চিকিৎসা দেয়া হয়েছে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে এবং আসলামকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) আব্দুর রহিম জানান, অভিযুক্তকে আটক করা হয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে