বড়াইগ্রামে দাদী নাতনীকে এসিড নিক্ষেপ

0
67

নাটোরের বড়াইগ্রামে দাদী (৫৫) ও নাতনীকে (১২) এসিড নিক্ষেপের অভিযোগ উঠেছে। এ ব্যাপারে বৃহস্পতিবার বিকেলে মামলা দায়ের করা হয়েছে। অভিযুক্তরা হলেন গুনাইহাটি গ্রামের মৃত খোকা দাসের পুত্র অনিল কুমার (৩৫) ও মৃত জফির উদ্দিনের পুুত্র আইয়ুব আলী (২৩)। ঐ নাতনী স্থানীয় সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৩য় শ্রেণীর শিক্ষার্থী। দাদী নাতনকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অভিযোগ সুত্রে জানাযায়, প্রায় এক বছর আগে মেয়েটি ফুপুকে উতক্ত করায় অনিল কুমারের বিরুদ্বে মামলা হয়। সেই মামলায় জেল থেকে সম্পতি ছাড়া পেয়ে বিভিন্ন হুমকি ধামকি দিচ্ছিল। গত সোমবার রাতে দাদী নাতনী এক চৌকিতে আর ফুফু আলাদা চৌকিতে ঘুমিয়ে ছিল। হঠাৎ রাত সারে তিন টার দিকে জানালার উপরে ঘরে তীরের পাশ দিয়ে কি যেন ছুড়ে মারে। তাতে দাদী ও নাতনীর শরীরে পা, পিঠসহ অনেক অংশ, কাপর পুরে যায়। শরীরে যালা যন্ত্রনা শুরু হলে চিৎকার দিলে তারা পালিয়ে যায়। পরে আহত অবস্থায় তাদেরকে স্থানীয় এক হাসপাতালে চিকিৎষা দেওয়া হয়।

অনিল কুমার বলেন, মেয়েটির ফুফু আমার ভাতিজী হয়। জেল থেকে ফিরে এসে তার সাথে কথা বলিনা। যেহেতু আগে একবার শাসন করতে গিয়ে বিপদে পরেছি। তাই আমি তার সাথে কথা বলিনা। এ ঘটনায় আমি কিছু জানিনা।

স্থানীয় কাউন্সিলর জিয়াউল হক বলেন, আমি জানার পরে থানায় মামলা করা পরামর্শ দিয়েছি।

বড়াইগ্রাম থানার পরিদর্শক দিলিপ কুমার দাস বলেন, অভিযোগ পেয়েছি। মামলার প্রস্তুতি চলছে। আসামী গ্রেপ্তার করে আইনের আওাতায় আনা হবে।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে