‘বড়াইগ্রাম থানা সদরে উপজেলা চাই’ শীর্ষক মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত

0
15

সুজন কুমার, জোনাইল, নাটোরঃ নাটোর জেলার বড়াইগ্রাম থানা সদরে উপজেলার দাবিতে মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। শনিবার বিকালে বড়াইগ্রামের জোনাইল আগষ্টিন সুপার মার্কেটের দ্বিতীয়তলায় আয়োজিত মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। সাপ্তাহিক চলনবিল প্রবাহ পত্রিকার প্রকাশক ও সম্পাদক মাহমুদুল হক খোকনের সভাপতিত্বে এবং কস্তা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান মন্টু ডানিয়েল ডি কস্তার সঞ্চালনায় বড়াইগ্রাম এবং বনপাড়াকে পৃথক দুটি উপজেলা গঠনের বিভিন্ন যৌক্তিক বিষয় নিয়ে প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন মাহমুদুল হক খোকন। প্রবন্ধের বিভিন্ন বিষয়ের উপর আলোচনায় বক্তব্য রাখেন নাটোর জজকোর্টের এ্যাডভোকেট শম্ভুনাথ শীল, প্রকৌশলী আবুল কালাম আজাদ, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক শরিফুল হাসান ফারুক, বড়াইগ্রাম উপজেলা প্রেসক্লাবের সভাপতি অহিদুল হক, যুগ্ন সম্পাদক মোহাম্মদ আলী গাজী,বৈশাখী টেলিভিশনের নাটোর প্রতিনিধি ইসাহেক আলী,দৈনিক আলোকিত সকালের স্টাফ রিপোর্টার সুজন কুমার শীল,দৈনিক মাতৃজগতের স্টাফ রিপোর্টার শাহ-আলম, সেন্ট লুইস উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক জেমস স্কট্ ডি কস্তা প্রমুখ। সভায় বক্তারা বলেন, নিয়মানুযায়ী থানা থেকে সর্বোচ্চ দুই কিলোমিটারের মধ্যে উপজেলা পরিষদ কমপ্লেক্স হওয়ার কথা। কিন্তু বিগত দিনে সারা দেশের ন্যায় বড়াইগ্রাম থানা উপজেলায় উন্নীত হওয়ার সময়ে অনিয়ম করে থানা সদর থেকে প্রায় ১২ কিলোমিটার দুরে বনপাড়ায় উপজেলা পরিষদ স্থাপন করা হয়েছে। নামে বড়াইগ্রাম উপজেলা হলেও কয়েকটি বাদে উপজেলার সকল অফিস বনপাড়ায় হওয়ায় ভোগান্তিতে পড়ছে বড়াইগ্রামবাসি। তাই বড়াইগ্রামবাসীর দীর্ঘদিনের দাবী অনুযায়ী বনপাড়াকে পৃথক উপজেলা ঘোষণার পাশাপাশি বড়াইগ্রাম উপজেলা পরিষদ মুল বড়াইগ্রামে স্থাপনের দাবী জানান তারা। বক্তারা আরও বলেন, শুধু বড়াইগ্রামবাসী নয় বনপাড়াবাসীও বিভিন্ন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছে। থানা এবং উপজেলা কমপ্লেক্স বড়াইগ্রামে হওয়ায় ১২ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করে তাদের আসতে হয়। তাই বড়াইগ্রাম এবং বনপাড়াবাসীকে একত্রিত হয়ে পৃথক দুটি উপজেলা গঠন করতে অনুরোধ করা হয়।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে