ভারতে পরিকল্পিত মুসলিম গণহত্যা চলছে

0
140

ভারতে পরিকল্পিতভাবে মুসলিম গণহত্যা চলছে। ভারতে নতুন নাগরিকত্ব আইন ও নাগরিকপঞ্জি তৈরির বিরুদ্ধে শান্তিপূর্ণভাবে প্রতিবাদের কারণে দেশটির সংখ্যালঘু মুসলমান সম্প্রদায়ের উপর নির্মম হত্যাযজ্ঞ শুরু হয়েছে। ইতোমধ্যে প্রায় ২৫ ব্যক্তি নিহত হয়েছে এবং বহু মানুষ আহত হয়ে জীবন-মৃত্যুর সঙ্গে লড়ছেন।

ভারতীতে মুসলিম গণহত্যা বন্ধে অবিলম্বে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে কার্যকরী উদ্যোগ নিতে হবে। বিভিন্ন ইসলামী দলের নেতৃবৃন্দ পৃথক পৃথক বিবৃতিতে এসব কথা বলেন।

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ : জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশ এর মহাসচিব আল্লামা নূর হোসাইন কাসেমী ভারতে মুসলিম গণহত্যার ঘটনায় গভীর উদ্বেগ প্রকাশ করে হত্যাযজ্ঞ বন্ধে জাতিসংঘসহ আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে কার্যকরী উদ্যোগ নেয়ার জোর দাবি জানিয়েছেন।

এক বিবৃতিতে জমিয়ত মহাসচিব আরো বলেছেন, ভারতের রাজধানী দিল্লিতে কয়েক দিন যাবত পদ্ধতিগত এই হত্যা চললেও দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী, আদালত, রাজ্য সরকার; কেউই তা থামাতে এগিয়ে আসেনি।

তিনি বলেন, দিল্লীতে একের পর এক মসজিদে হামলা চলছে। সেখানে মসজিদের মিনারগুলোতে হিন্দুধর্মীয় প্রতীক স্থাপন করা হচ্ছে। যা মুসলমানদের ঈমান বিশ্বাস অনুভ‚তির প্রতি চরম অবমাননাকর।
এই হামলার সময় দেশটিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট উপস্থিত থাকলেও তিনি এ বিষয়ে উচ্চবাচ্য করেননি। যা যুক্তরাষ্ট্রের গণতান্ত্রিক ভাব-মর্যাদার জন্য চরম লজ্জাজনক।

খেলাফত মজলিস : ভারতের রাজধানী দিল্লীতে উগ্র হিন্দুত্ববাদীদের আক্রমণে ২১ জন নিহত, মুসলমানদের মসজিদ, ঘর-বাড়ী, ব্যবসায় প্রতিষ্ঠানে অগিসংযোগের ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে খেলাফত মজলিসের আমীর মাওলানা মোহাম্মদ ইসহাক ও মহাসচিব ড. আহমদ আবদুল কাদের বলেছেন, ভারতে নরেন্দ্র মোদির নেতৃত্বাধীন হিন্দুত্ববাদী বিজেপি সরকার ও প্রশাসনের ছত্রছায়ায় দিল্লীতে নির্বিচারে মুসলমানদের হত্যা করা হচ্ছে।

নেতৃদ্বয় বলেন, মসজিদের মিনারে হনুমান পতাকা টাঙ্গিয়ে দেয়া হচ্ছে। গত ৩ দিনে সেখানে ২১ জনকে হত্যা করা হয়েছে। ভারতে মুসলমানদের বিরুদ্ধে এ ভয়াবহ আক্রমন ও হত্যাযজ্ঞ মানবাধিকারের চরম লঙ্ঘন। দিল্লীতে চলমান দাঙ্গায় মুসলমানদের জান-মাল ও ধর্মীয় স্থাপনা রক্ষায় ভারত সরকার সর্ম্পূণরূপে ব্যর্থ হয়েছে। অবিলম্বে দিল্লীতে চলমান এ ভয়াবহ দাঙ্গা ও পৈচাশিকতা বন্ধ করতে হবে। মুসলমানদেরর রক্ত নিয়ে হোলি খেলা বন্ধ করতে হবে।

ইসলামী ঐক্যজোট: ইসলামী ঐক্যজোটের চেয়ারম্যান ও বাংলাদেশ নেজামে ইসলাম পার্টির সভাপতি মাওলানা আবদুল লতিফ নেজামী ভারতের রাজধানী দিল্লীর অশোকনগরের একটি মসজিদে গেরুয়া পোশাকধারী বিজেপীর একদল উন্মত্ত সন্ত্রাসীর অগ্নিসংযোগ ও মসজিদের মিনারে হনুমানের পতাকা ঝুলানোর মতো ঘৃণ্য ঘটনার বিরুদ্ধে তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা প্রকাশ করে বলেছেন, বিজেপি যে ইসলাম ও মুসলমান বিদ্বেষের প্রতিচ্ছবি, তা আরেকবার বিশ্ব্ববাসির কাছে উলঙ্গভাবে ফুটে উঠেছে। এতে বিজেপি কর্মীদের ফ্যাসিবাদী চরিত্রের আবার নগ্ন বহিঃপ্রকাশ ঘটেছে।

তিনি চরম হিন্দুত্ববাদী উগ্রবাদী বিজেপি পরিচালিত ইসলাম ও মুসলমান বিরোধী ষড়যন্ত্র ও আগ্রাসন থেকে ভারতীয় মুসলমানদের ও তাঁদের ধর্মীয় প্রতিষ্ঠন রক্ষায় ঐক্যবদ্ধভাবে সোচ্চার হওয়ার জন্যে বিশ্বের শান্তিকামী এবং মুসলিম উম্মাহ’র প্রতি আহ্বান জানান।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে