মুজিব বর্ষ ও বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তন

0
165

মুজিব বর্ষ ও বঙ্গবন্ধুর প্রত্যাবর্তন

আর কিছুমাত্র সময়ের অপেক্ষা,
বিশাল ভবসিন্ধু
দীর্ঘ ৯৯ বছর অতিক্রম করে
জন্মশতবর্ষে পা দেবে আমার প্রিয় বঙ্গবন্ধু।
আহা! সত্যি যদি এমন হতো
বঙ্গবন্ধু মরে নাই, ওগো বাহুবলী
হঠাৎ করেই পুষ্প বেদীমূলে দাঁড়িয়ে গেলে তুমি
হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী!
বিস্ময়ে বিস্ফোরিত নেত্র
রবিঠাকুরের রামকানাই এর মত,
দ্যাখে উন্নয়নের রথচক্র
চারদিকে ঘুরছে অবিরত!
একি তোরা করেছিস কি?
ঘোষের চর হয়ে মধুমতি দিয়ে
অতঃপর পাঁচুরিয়া-বাগিয়ের নদী
লঞ্চে চড়ে এ জলপথে এসেছি নিরবধি।
কিন্তু এখন একি দেখি!
গোপালগঞ্জ শহরে চলা
এক সময়ের সুবিশাল মধুমতি
এখন বড়জোর নর্দমার নালা অতি;
বন্ধ করে পাঁচুরিয়ার গতি
ব্রীজ ছাড়াই রাস্তা গড়েছে দেখি
এখানকার নগরপতি!
অসহায় জেলা প্রশাসন
নাকের ডগায় তার বহুতল মার্কেট ভবন
জেলা পরিষদের ক্ষমতার জোরে
উঠছে ফুঁড়ে,
পাঁচুরিয়া নদীর বুক চিরে।
অসহায় বর্ণি বাঁওড়
সিঁঙ্গিপাড়া-সাতারকূলে
বন্ধ কেন মুখ দুটি তার?
নীলফা-পাটগাতিসহ অসংখ্য খালের জালি
টুঙ্গিপাড়ায় ওরা আজ কেন
শুধুই নর্দমার নালী?
অসাধারন বৈচিত্র্যে ভরা, শ্যামল সবুজে গড়া
আমার টুঙ্গিপাড়া সোনার স্বদেশ
লুটেরা ভূমিদস্যু যত, খুবলে নদী অবিরত
দখলে দূষনে রত
বিলাও তারি অমিয় সন্দেশ?
বিদ্যুৎ প্লান্ট, সোলার প্যানেল
আর ইপিজেড এর নামে
উন্নয়নের ঘেরাটোপে নদীগুলো সব খেল;
অতঃপর বঙ্গবন্ধু! বিদূরিলো চিৎকার
চেতনা মোর রইলো কোথায়,
হায়রে অভাগা দেশ বলে মুর্ছা গেল!

 

লেখক: সাজিদুর রহমান

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে