স্বপ্ন জোড়া লাগতে বাকি কেবল একটি স্প্যান

0
115

শরীয়তপুর প্রতিনিধি: সুঁই এর প্রতিটি ফোঁড়ে ফোঁড়ে যেমন তৈরি হয় একটি নকশিকাঁথা, তেমনিভাবে প্রতিটি স্প্যানের বন্ধনে দৃশ্যমান হচ্ছে স্বপ্নের পদ্মাসেতু। আর একটি মাত্র স্প্যান বসানো হলেই স্বপ্ন পূরণ হবে লাখো মানুষের, সম্পূর্ণ দৃশ্যমান হবে পদ্মাসেতু। মুন্সীগঞ্জে পদ্মা সেতুর মাওয়া প্রান্তে ১১ ও ১২ নম্বর পিলারের ওপর ৪০তম স্প্যান বসানো হয়েছে। শুক্রবার সকাল ১১ টার দিকে স্প্যানটি বসানো হয়। ফলে দৃশ্যমান হলো সেতুর ছয় কিলোমিটার।

এর আগে গত ২৭ নভেম্বর মাওয়া প্রান্তের ১০ ও ১১ নম্বর খুঁটির ওপর ৩৯তম স্প্যানটি বসানো হয়েছিল। ১৬ ডিসেম্বরের আগে ১২ ও ১৩ নম্বর খুঁটিতে সবশেষ ৪১তম স্প্যানটি বসানো হবে।

২০১৪ সালের ডিসেম্বরে পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়। ২০১৭ সালের ৩০ সেপ্টেম্বর ৩৭ ও ৩৮ নম্বর খুঁটিতে প্রথম স্প্যান বসানোর মধ্য দিয়ে দৃশ্যমান হয় পদ্মা সেতু। এরপর একে একে বসানো হয় ৩৪টি স্প্যান। ৪২টি পিলারে ১৫০ মিটার দৈর্ঘ্যের ৪১টি স্প্যান বসিয়ে ৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ পদ্মা সেতু নির্মাণ করা হবে।

৬ দশমিক ১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ এ বহুমুখী সেতুর মূল আকৃতি হবে দোতলা। কংক্রিট ও স্টিল দিয়ে নির্মিত হচ্ছে এ সেতুর কাঠামো। পদ্মা সেতুর নির্মাণকাজ সম্পূর্ণ হওয়ার পর আগামী ২০২১ সালেই খুলে দেয়া হবে জনসাধারণের জন্য।

একটি উত্তর ত্যাগ

আপনার মন্তব্য লিখুন দয়া করে!
এখানে আপনার নাম লিখুন দয়া করে